রাজস্থান ভ্রমণঃজয়সলমীর

“ঐ তো ! ওটাই তো !” বলে উঠল আমার ছেলে| সবার চোখ তখন সেদিকেই| রাতের জয়সলমীর শহর এর বুকে সূর্যের মত উজ্জ্বল হয়ে জ্বলছে ‘সোনার কেল্লা’ | কি অপূর্ব শোভা | এক অনাবিল আনন্দে ভাসতে ভাসতে চললাম হোটেলের দিকে|

IMG_5349_marked.jpg
The Golden Fortress: Jaisalmer Fort

হনুমান সার্কেল এর কাছে শাহী প্যালেস- আমাদের দুদিনের আস্তানা| হলুদ বেলে পাথরে তৈরি হোটেল | চওড়া বারান্দা আর ছাদের ওপরে সুন্দর খাওয়ার বন্দোবস্ত, এমন কি চাইলে ক্যাম্প ফায়ার এর ও জোগাড় করে দেবে এরা|

সকালে জলখাবার খেয়ে বেরিয়ে পড়লাম সোনার কেল্লা দেখতে| বড় গাড়ি দূরে রেখে কিছুটা পথ হেঁটে কেল্লা পৌঁছোতে হয়| অটো করে কেল্লার ভেতরে যাওয়ার ব্যবস্থা ও আছে|

জয়সলমীর ফোর্ট ; সোনার কেল্লা

Aviary Photo_131323433818806534_marked.png
The Jaisalmer Fort in the Sunlight

ভাট্টিরাজাদের রাজধানী জয়সলমীর| ভাট্টি রাজারা যাদব বংশের তাই এদের বংশ পরিচয় শ্রীকৃষ্ণ থেকে শুরু হয়|IMG_4931_marked.jpg

মহারাওয়াল জয়সল সিং স্থানীয় এক সাধু এর আদেশে লোধূর্বা থেকে তাঁর রাজত্ব সরিয়ে এনে  ত্রিকূট পর্বতের উপরে  ১১৫৬ খ্রিঃ জয়সলমীর শহরে তাঁর কেল্লা গড়ে তোলেন| রাজার নাম থেকে ‘জয়সল’ আর ‘মেরু’ (পাহাড়) থেকে ‘মীর’ এই দুই মিলে শহরের নাম হয়েছে জয়সলমীর|  লোধূর্বার থেকে জয়সলমীর সব দিক থেকে অনেক বেশি সুরক্ষিত শহর| কেল্লার আকার ত্রিকূট পর্বতের সঙ্গে মিল রেখে তিনকোনা |

IMG_4929_marked.jpg
Maharawal Jaisal Singh

 

IMG_4997_marked.jpg
Miniature Map of Jaisalmer Fort

 

 

ফোর্ট এর  প্রবেশ পথে চারটি গেট আছে- অক্ষয় পোল, সুরজ পোল, গণেশ পোল ও হাওয়া পোল|  হাওয়া পোল পেরিয়ে কেল্লার ভেতরে দশেরা চকে পৌঁছোলে একটু স্বপ্নভঙ্গ হতে পারে| বাইক, অটো, বিভিন্ন মনিহারি জিনিসের দোকান, খাবার দোকান কি নেই! আসলে জুনাগড় আর জয়সলমীর ফোর্ট এর মধ্যে অনেক তফাৎ — এই কেল্লাতে যে কয়েক হাজার মানুষের বসত বাড়ি|  বিশাল এই কেল্লা বর্তমানে UNESCO World heritage site হিসেবে সম্মান পেয়েছে|

দশেরা চকে পৌঁছে দুই দিকে দুই মহল -রাজার মহল আর রাণীর মহল|

IMG_4911_marked.jpg
King’s Palace

 

প্রায় সব রাজস্থানী ফোর্টেই এই দুই মহল মুখোমুখি দেখতে পাবেন| তবে মজার ব্যাপার হচ্ছে তফাৎ দেখবেন জাফরি বা জালি কাজে| রাজার মহল অনেক খোলামেলা—অনেকটা দক্ষিণ কোলকাতার মত আর রাণীর মহলে জালি কাজ সূক্ষ্ম,বেশ একটা দমবন্ধ করা ভাব ,মিল আছে উত্তর কোলকাতার সঙ্গে ( উত্তরের মাননীয় মানুষেরা কিছু মনে করবেন না,প্লিজ|)

IMG_4912_marked.jpg
Queen’s Palace

 

জয়সলমীর ফোর্ট মিউজিয়াম

IMG_4920_marked.jpg
Armoury

এই মিউজিয়াম জুনাগড়ের তুলনায় বেশ ছোট |

IMG_4921_marked.jpg
Silver throne

 

 

20161225_124108_marked.jpg
Royal Bed of Silver

রাজার বিছানা আর খাবার পাত্র রূপার তৈরি| কিন্তু এখানে  আরো অনেক মিউজিয়ামে ও দেখেছি রাজার এত কিছু রাজকীয় ব্যাপারসাপার কিন্তু বিছানার বেলায় কার্পণ্য , বড্ড বেশি কার্পণ্য| ছোট্ট ও নিচু শয্যা দেখে আমরা ভাবছিলাম কার না কার বিছানা রেখে দিয়ে রাজার বিছানা বলে চালাচ্ছে| কিন্তু গাইড যখন ব্যাখ্যা করল পুরো ব্যাপার টা জলের মত হয়ে গেল|

১) রাজার শয্যা ছোট হলে রাজার পা দুটি বাইরে থাকত শত্রু যদি ঘুমের মাঝে রাজাকে বিছানার সংগে বেঁধেও ফেলে, রাজা ঘুম ভাঙলেই পা মাটিতে দিয়ে উঠে দাঁড়াতে পারতেন|

২) নিচু শয্যা হবার কারণে কেউ তার নিচে লুকিয়ে থাকতে পারতো না|

৩) রূপার পাত্রে পরিবেশিত খাবারে যদি বিষ থাকে তাহলে রূপার পাত্রের রং সংগে সংগে বদলে যাবে |

ফিজিক্স আর কেমিষ্ট্রি মিলে পুরো ব্যাপারটা সহজ হলো কি না !

মিউজিয়ামে বেশ কিছু পাথরের মূর্তি আর প্যানেল আছে| রামচন্দ্রের দাড়িওলা ও নাথুলালজী মার্কা গোঁফ সমেত রূপ এর আগে কখনো দেখি নি|

Aviary Photo_131323436847841980_marked.png
RamaChandra and Apsaras

 

 

20161225_124758_marked.jpg
Female Dancers

 

কেল্লার ভেতরে বেশ কিছু দেখবার মত হাভেলি আছে যা রাজার অনুমতি নিয়ে ধনী ব্যবসায়ীরা বানিয়েছিল| এদের মধ্যে নাথমলজী কি হাভেলি, পাটোয়া কি হাভেলি ইত্যাদি বিখ্যাত|

মুকুলের বাড়ির ভগ্নাংশ ও দেখতে পাবেন|

IMG_5016_marked.jpg
Mukul’s House

 

আর আছে জৈনমন্দির |

jain temple_marked.jpg
Jain Temples at Jaisalmer Fort

 

তবে মনটা খুব ভারী হয়ে গেলো সোনার কেল্লার ভিতরের দশা দেখে| খুব তাড়াতাড়ি ভেঙে পড়ছে রাণির মহল ও অন্যান্য অংশ|

 

IMG_4972_marked.jpg
A view of Jaisalmer City from the top of the fort

 

 

wp-image-74671215jpg.jpg
Kamicha Player

 

অনেক ছবিতে এনাকেই দেখেছি, ঠিক এই ভাবেই| আমিও তাঁকে ক্যামেরা বন্দি করলাম কেল্লা থেকে বেরিয়েই| কামিচাতে সুর তুলছেন-“পাধারো মারে দেশ, কেশরিয়া বালম” | খানিক আনমনা হয়ে চলছি, সামনেই দেখি মোনালিসা, রাজস্থানী মোনালিসা| বললুম,” কেমন লাগছে এই সাজে?” উত্তর দিলো ,”awesome”—যুগের হাওয়া মরুর হাওয়ার থেকেও জোরে বইছে!!20170107_005320.jpg

মরু সফর :থর মরুর বুকে খুরিতে

IMG_5024_marked.jpg
Listening to the wind of change : on the way to the desert

খুরি পৌঁছোতে বিকেল ৪টে বেজে গেলো| দূর্গাজী আমাদের নিয়ে গেলেন  Garh Marwar Resort and Desert Camp এ| এদের প্যাকেজ – Camel safari, Desert Folk Dance and Song and Dinner | জন প্রতি মোটামুটি ১৫০০-২০০০ টাকা|

প্রচন্ড উত্তেজনায় ফুটছি সকলে আর খুব হাসাহাসি চলছে লালমোহনবাবুর উটে চড়ার ঘটনা মনে করে| এর মধ্যে উট চলে এসেছে | আমার ননদ আর ননদাই এর ওঠা দেখে হাসিটা একটু স্তিমিত হল| আমার ছেলে আর আমি যখন উঠলাম তখন মনে মনে ভগবান কে ডাকছি| অনেকক্ষণ পরে যখন দেখলাম ভয় একটু কমেছে তখন খেয়াল করলাম এতক্ষণ মনে মনে “জয় বাবা লালুনাথ” বলেছি— ভয়ে পড়লে এমনই হয় !!IMG_5075_marked.jpg

একবার ঠিকঠাক চড়ে ফেললে আর ভয় পাবার কিছু নেই , সত্যি| বেশ মজাদার ব্যাপার| উটে টানা গাড়িও আছে মরুভূমির বুকে নিয়ে যাবার জন্য|IMG_5173.JPG

মরুভূমিতে উটের পিঠে চড়ার অভিজ্ঞতা আসলে শুধু উটে চড়া নয়ঃ এই অভিজ্ঞতা মানে চারদিকে বালির সাগর , ডুবে যাওয়া সূর্যের রক্তিমাভা, বালিয়াড়ির মধ্যে হাওয়ার তুলি টানা আর ঠান্ডা বালিতে পা ডুবিয়ে হঠাত খেয়াল করা –প্রকৃতি কি বিশাল! কত ছোট ছোট চিন্তার জালে নিজেদের বেঁধে রেখে ভুলে থাকি এই বিশালত্ব! একবার অবশ্যই যাবেন মরুর বুকে, কোঁচকানো মনটা ডানা মেলে মন ফকিরা হয়ে যাবে| তাকে ফিরিয়ে আনার দায়িত্ব পাশের কাউকে দিয়ে রাখবেন আগে থেকে| সাবধানের মার নেই|img_5091_marked

মরু জলসাঃ

IMG_5185_marked.jpg
Folk song and Dance at Garh Marwar Resort : Khuri

উদাত্ত কন্ঠে রাজস্থানী লোকগীতি সঙ্গে বিভিন্ন রকমের পকোড়া আর কফি – ২৫শে ডিসেম্বর এর পার্ক স্ট্রীটকে ছাপিয়ে গেলো| নৃত্য শিল্পীদের রঙীন পোষাক, চোখের ভঙ্গিমা আর শারীরিক দক্ষতা দেখে ক্যামেরায় চোখ রাখতে ভুলেই যাচ্ছিলাম| গানে, নাচে ও শিল্পকলার পেলব কারুকার্যে এখানকার লোকশিল্পীরা অনবদ্য|  এই সব দেখতে দেখতে ঘন্টা চারেক সময় কখন কেটে যাবে বুঝতেই পারবেন না|

IMG_5291_marked.jpg
Dancing on saucers and glasses

 

 

IMG_5195_marked.jpg
Playing Khartal

রাতের খাবার ও বেশ ভালো তবে নিরামিষ| পানীয়ের ব্যবস্থা ও আছে|

 

সব শেষে শিল্পীরা সমস্ত দর্শকে নিয়ে আগুন ঘিরে নাচতে নাচতে বিদায় জানায় অতিথিদের|

এখানে রাতে Desert Camp এ থাকার অত্যন্ত সুবন্দোবস্ত আছে|

মিনিট ৪৫ এর মধ্যে আবার ফিরে এলাম শাহী মহলে,আসার সময় আবার দেখা হয়ে গেল| রাতের সোনার কেল্লা যেন রূপকথার প্রাসাদ|IMG_5347_marked.jpg

গাদিসর লেক

এবার জয়সলমীরকে বিদায় জানানোর পালা| পরের দিন সকালে (২৬ শে ডিসেম্বর) হোটেলে জলখাবার খেয়ে দেখতে গেলাম গাদিসর লেক| বেশ পরিস্কার ও মনোরম|

IMG_5355_marked.jpg
Gadisar Lake

 

গাদিসর লেকের চারপাশে প্রচুর দোকান আছে, পাওয়া যায় নানারকমের রাজস্থানী গয়না, রঙীন রাজস্থানী পাগড়ি, এখানে রাজস্থানী সাজে সেজে ছবি তোলার ব্যবস্থা ও রয়েছে| আর দেখতে পেলাম রাবণহাতা বাজানো|

IMG_5358_marked.jpg
Rajasthani Turban

 

 

IMG_5356_marked.jpg
Playing Ravanhata

এইসব দেখে আমরা যাবো যোধপুর| জয়সলমীর -যোধপুর হাইওয়েতে যাবার পথে দেখবো Jaisalmer War Museum। কিন্তু সেখানে যা দেখেছি, যা অনুভব করেছি তা বলবো পরবর্তী পর্বে| এই মিউজিয়াম সম্বন্ধে আমায় লিখে রাখতেই হবে, আমার ছেলের জন্য|

IMG_4994_marked.jpg
Sonar Kella

 

 

 

 

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s